যুক্তরাজ্যে ফাইভজি প্রকল্পে থাকছে হুয়াওয়ে

  • Abashan
  • ২০২০-০১-৩০ ১২:৩৩:২৩
image

চীনভিত্তিক হুয়াওয়েকে ফাইভজি প্রকল্পে ব্লক করতে যুক্তরাষ্ট্রের পরামর্শ-প্ররোচনা এবং চাপে কান না দিয়ে সীমিত পরিসরে অংশ নেয়ার অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য। অর্থাৎ যুক্তরাজ্যে পঞ্চম প্রজন্মের মোবাইল নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি ফাইভজি অবকাঠামো নির্মাণে হুয়াওয়ের অংশগ্রহণ থাকছে। গত মঙ্গলবার এমনটাই ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। খবর বিবিসি।

 

যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্য দুই ঘনিষ্ঠ মিত্র দেশ। তবে হুয়াওয়ে ইস্যুতে যুক্তরাজ্যের সিদ্ধান্ত যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্কে প্রভাব ফেলবে বলে মনে করা হচ্ছে। হুয়াওয়ের নেটওয়ার্ক সরঞ্জামের মাধ্যমে চীন সরকার পশ্চিমা দেশগুলোর ওপর গুপ্তচরবৃত্তির কার্যক্রম পরিচালনা করছে বলে দাবি যুক্তরাষ্ট্রের। যে কারণে ফাইভজি নেটওয়ার্ক প্রকল্পে হুয়াওয়ের সরঞ্জাম বর্জনে যুক্তরাজ্যসহ অন্য মিত্র দেশগুলোকে চাপ দিয়ে আসছিল যুক্তরাষ্ট্র।

 

বিশ্লেষকদের ভাষ্যে, যুক্তরাজ্যের সিদ্ধান্ত পরবর্তী প্রজন্মের মোবাইল ডাটা সেবার জন্য ইতিবাচক ও ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত। ফলে বৈশ্বিক টেলিযোগাযোগ খাত লাভবান হবে। এ বিষয়ে আইএইচএস মার্কিটের বিশ্লেষক স্টিফেন টেরাল বলেন, আমি মনে করি এটি একটি ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত। হুয়াওয়ে ইস্যুতে যুক্তরাজ্যের সিদ্ধান্ত বৈশ্বিক ফাইভজি ইকোসিস্টেমে স্থিতিশীলতা ও ধারাবাহিকতা নিয়ে আসবে।

 

তিনি বলেন, হুয়াওয়ে চলতি শতকের শুরু থেকে যুক্তরাজ্যসহ ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, পোল্যান্ডের মতো ইউরোপের দেশগুলোয় বিনিয়োগ করে আসছে। কাজেই ফাইভজি প্রকল্পে এ প্রতিষ্ঠানের পণ্য বর্জন সর্বনাশা সিদ্ধান্ত হবে।