বুধবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০

সামাজিক দুরত্ব- সামাজিক মাধ্যম- ফখরুল মুনির

  • জাতীয় প্রতিবেদক
  • ২০২০-০৯-১৪ ১৩:৩৭:৪৩
image

ইহা আমাদের সর্বনাশ চূড়ান্ত করিয়াছে। সামাজিক সম্পর্কের ছদ্ম লইয়া সমাজে কি প্রকারে বিচ্ছিন্নতা ও বিভেদ বাড়ানো যায়, ইহার মাধ্যমে সেই পায়তারা চলিতেই দেখা যায়। ইহা মানুষকে এতটাই দখল করিয়াছে, মানুষ তাহার বেদখল হইবার খবরটিও পায় না।  অধিক রহস্য করিয়া কাজ নাই। ইহাকে বাংলায় ‘সামাজিক মাধ্যম’ বলে। কে তাহার এই নাম রাখিলো জানিতে পারি নাই। তবে এই নাম লইয়া ইহা সামাজিক বন্ধন ছেদ করিবার দায় এড়াইতে পারিবে না, তাহা নিশ্চয় করিয়া বলিতে পারি।

    
    ইহার প্রতি নিবিষ্ট হইয়া ইহার সেবকগণ এতটাই মগ্ন থাকেন, জগদসংসারের বাস্তব উপস্থিতির প্রতি তাহার অতিশয় বৈরাগ্য জন্মায়। যাহাকে ইহার পর্দায়  স্পষ্ট  দেখিবার জন্য বৃদ্ধঙ্গুষ্ঠি ও তর্জণীর বিপরীত যাত্রা অস্থিরভাবে চলিতে থাকে, .সেই  মানুষটি যখন সুমুখে হাজির হয়, তখন তাহার পানে একপলক চাহিয়া সে আবার একখন্ড ক্ষুদ্র পর্দার উপর দৃষ্টি স্থাপন করে। সামনের সত্য মানুষটিকে মুহূর্তে মিথ্যা বানাইয়া, তাহাকে তুচ্ছ করিয়া, হাতে রাখা নিষ্প্রাণ বস্তুর পর্দায় ভাসা মানুষকে লইয়া সে কোথায় যেন ভাসিতে থাকে।

    এই নিষ্প্রাণ বস্তুটি নিজে প্রাণহীন হইলেও অপরের প্রাণ নিষ্প্রভ করিতে পটু। ইহা মানুষের অনেক ইচ্ছা কাড়িয়া লইয়াছে। দীর্ঘক্ষণ কর্মসাধনার পরে ক্লান্ত হইয়া কেহ চক্ষু মুদিয়া দুইদন্ড অবকাশ লইবে, অবসরে কোন আত্মীয়কে স্মরণ করিয়া তাহার খোঁজ লইতে ব্যাকুল হইবে, আরেকটু সময়  মিলিলে একটি পুস্তক লইয়া উহার গভীরে মগ্ন হইবে এবং সময় যদি অবারিত হয়, তাহা হইলে পরিবার ও স্বজন-বান্ধবগণের সহিত খোশগল্প করিয়া তুষ্টি অর্জন করিবার সকল ইচ্ছা এই একখন্ড বস্তু কাড়িয়া লইয়াছে।

    মানুষ এই বস্তুটি কিনিয়া লইয়া নিজকে ইহার নিকট বিক্রয় করিয়া দিয়াছে। যাহাকে সে চালনা করিতো, .সেই তাহাকে চালনা করে। যাহা মানুষের মুঠিতে থাকিবার কথা, তাহা মানুষকে আপন পর্দার মায়াজালে আটক করিয়া এক  প্রকার বোধ-বুদ্ধিহীন জড়পদার্থে. রূপান্তরিত করিয়াছে। অবস্থা এমনই হইয়াছে, ক্রিয়ার বিপরীতে প্রতিক্রিয়া দেখাইবার উপায় এমন কি ভাষার  যোগান তাহার থাকে না। .যেই বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়া তাহার পূর্বতন  চৌদ্দপুরুষ  বিষম অপমানিত হইতো, সে উহা পাইতে ব্যাকুল অপেক্ষায় থাকে। 

   এই দমবন্ধ অবস্থা হইতে মুক্তির উপায় কি?  মানুষ যখন বুঝিতে পারিবে সে মুক্ত নহে , তখন তাহার মুক্তির চেষ্টা ফলিতে পারে।

- ফখরুল মুনির


এ জাতীয় আরো খবর