বুধবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০

বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন হলে রাজধানীতে ময়লা-আবর্জনা থাকবে না: তাজুল

  • জাতীয় প্রতিবেদক
  • ২০২০-০৮-২২ ২১:৪২:২৫
image

আমিন বাজারের বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হলে রাজধানীতে আর ময়লা-আবর্জনা থাকবে না বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।
তিনি শনিবার ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের অধীন আমিন বাজারের অবস্থিত ডাম্পিং স্টেশন ও গাবতলীর মেকানিক্যাল ওয়ার্কশপ পরিদর্শন কালে এ কথা বলেন।
এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম সহ করপোরেশনের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
মো. তাজুল ইসলাম বলেন, রাজধানীর আমিন বাজারের নির্মিতব্য দেশের প্রথম বর্জ্য থেকে উৎপাদনের জন্য বিদ্যুৎ প্ল্যান্ট স্থাপিত হলে মহানগরীর রাস্তা-ঘাট ও খাল-বিলসহ যেখানে সেখানে ময়লা-আবর্জনা পড়ে থাকবে না।
তিনি বলেন, বিদ্যুৎ প্ল্যান্ট স্থাপিত হলে সেখানে প্রতিদিন তিন হাজার টন ময়লা আবর্জনার প্রয়োজন হবে। এই বিপুল পরিমাণ ময়লা-আবর্জনা সংগ্রহ করে বিদ্যুৎ প্ল্যান্ট নির্মিত হলে শহরের যেখানে-সেখানে ময়লা আবর্জনার স্তূপ আর থাকবে না।
বিদেশি একটি কোম্পানির সঙ্গে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার কথা জানিয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার ১৮ মাসের মধ্যেই বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হবে। যদিও তারা আরও কিছু বেশি সময় চেয়েছিল। চূড়ান্ত চুক্তির সময় এই বিষয়টি ফয়সালা হবে।
তিনি আরও বলেন, বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ প্ল্যান্টের পাশে একটি ইকো পার্ক ও নির্মাণ করা হবে। যা পরিবেশ সুরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।
রাজধানীর হাসপাতালগুলোকে নিজেদের সৃষ্ট বর্জ্য নিঃশেষ করতে নিজস্ব ডিসপোজাল প্ল্যান্ট না থাকার বিষয়টি উল্লেখ করে মন্ত্রী আরও বলেন, হাসপাতালগুলোর নিজস্ব ডিসপোজাল প্ল্যান্ট থাকলে তাদের যে মেডিকেল বর্জ্য রয়েছে সেগুলো নিঃশেষ করা সম্ভব হতো।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সিটি করপোরেশনের আওতাধীন যে সমস্ত জায়গা অবৈধভাবে দখল করা হয়েছে সে জায়গা অতি দ্রুত দখলমুক্ত করতে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


এ জাতীয় আরো খবর