বৃহস্পতিবার, জুলাই ৯, ২০২০

বাণিজ্য মেলা: ওয়ালটনের ঘরে চার পুরস্কার

  • Abashan
  • ২০২০-০২-০৮ ১৭:২১:৫৭
image

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৫তম আসরে চারটি পুরস্কার পেয়েছে দেশের ইলেকট্রনিক্স  জায়ান্ট ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। মেলায় প্রতিবারের মতো এবারও সর্বোচ্চ পরিমাণ ভ্যাট দিয়েছে ওয়ালটন। এরই স্বীকৃতিতে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কাছ থেকে পেয়েছে শীর্ষ ভ্যাটাদাতার দুটি পুরস্কার। 


এছাড়া মেলায় দৃষ্টিনন্দন ও শৈল্পিক ডিজাইনের প্যাভিলিয়ন তৈরি করায় ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান মার্সেল পেয়েছে সেরা সাধারণ প্যাভিলিয়ন ক্যাটাগরির প্রথম পুরস্কার। সেরা প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন ক্যাটাগরিতে দ্বিতীয় পুরস্কার অর্জন করেছে ওয়ালটন। 


উল্লেখ্য, বাণিজ্য মেলায় সেরা ভ্যাটদাতার পুরস্কার চালুর পর থেকে এই নিয়ে টানা ১৪ বছর ধরে প্রথম পুরস্কার পাচ্ছে ওয়ালটন। পাশাপাশি দৃষ্টিনন্দন প্যাভিলিয়ন তৈরি করে প্রায় প্রতি বছরই পুরস্কৃত হয়ে আসছে ওয়ালটন এবং মার্সেল।  আয়োজক সংস্থা ইপিবি ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সোমবার (৩ ফেব্রæয়ারি) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে ২৫ তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার সমাপণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এ সময় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি। 


মার্সেলের পক্ষে সেরা সাধারণ প্যাভিলিয়ন ক্যাটাগরির প্রথম পুরস্কার গ্রহণ করেন প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক রিফাহ তাসনিয়া স্বর্ণা। ওয়ালটনের পক্ষে সেরা ভ্যাটদাতা ক্যাটাগরির প্রথম পুরস্কার গ্রহণ করেন প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী পরিচালক মো. হুমায়ূন কবীর। এছাড়া সেরা প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়নের দ্বিতীয় পুরস্কার গ্রহণ করেন ওয়ালটনের ডেপুটি অপারেটিভ ডিরেক্টর মো. মুজাহিদুল ইসলাম। 


অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. জাফর উদ্দিন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জজ, ইপিবি’র ভাইস-চেয়ারম্যান ফাতিমা ইয়াসমিন, ইপিবি’র মহা-পরিচালক ও ডিআইটিএফ-২০২০ স্টিয়ারিং কমিটির সভাপতি অভিজিৎ চৌধুরী, ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র সহ-সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান প্রমূখ। 


পুরস্কার প্রাপ্তির প্রতিক্রিয়ায় মেলায় ওয়ালটন ও মার্সেল প্যাভিলিয়নের কো-অর্ডিনেটর হুমায়ূন কবীর বলেন, ওয়ালটন দেশের শীর্ষ ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ড। বাংলাদেশের প্রায় ৭৫ ভাগ ক্রেতার আস্থা এখন ওয়ালটনে। মেলায় দুটি দৃষ্টিনন্দন প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন তৈরির পাশাপাশি বিশ্বের লেটেস্ট ও উদ্ভাবনী প্রযুক্তির নতুন নতুন পণ্য আনে ওয়ালটন। তাই মেলার শুরু থেকেই ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ভিড় ছিলো। বিক্রিও হয়েছে আশাতীত। সেজন্য মেলায় সর্ব্বোচ ভ্যাট প্রদানে সক্ষম হয়েছে ওয়ালটন। এরই স্বীকৃতিস্বরূপ মিলেছে শীর্ষ ভ্যাটদাতার পুরস্কার। এ অর্জনের কৃতিত্ব মেলায় আগত ওয়ালটনের অগণিত ক্রেতা সাধারণের। এ প্রাপ্তি ওয়ালটনকে আগামী দিনে আরো নতুন নতুন প্রযুক্তি পণ্য উৎপাদনে অনুপ্রাণিত করবে। 


মেলায় শীর্ষ ভ্যাট প্রদানকারীর পাশাপাশি সেরা প্যাভিলিয়ন প্রতিষ্ঠানগুলোকে পুরস্কারের মাধ্যমে সম্মানিত করায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও ইপিবি’র প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ওয়ালটনের ডেপুটি অপারেটিভ ডিরেক্টর মো. মুজাহিদুল ইসলাম।  তিনি জানান, বাণিজ্য মেলায় সেরা ভ্যাটদাতার পুরস্কার চালুর পর থেকে টানা ১৪ বছর ধরে প্রথম পুরস্কার পেয়ে আসছে দেশের শীর্ষ ব্র্যান্ড ওয়ালটন। 


অনুষ্ঠানে বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, ক্রেতা-সমাগম, পণ্য বিক্রি, রপ্তানি আদেশসহ সার্বিকভাবে অতীতের যেকোনো বারের চেয়ে এবারের মেলা খুব ভালো হয়েছে। বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে দ্রæত এগিয়ে যাচ্ছে। যা সারা বিশ্বের কাছে এক বিষ্ময়। বর্তমানে বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠানের পণ্য দেশ-বিদেশে ব্যাপক সমাদৃত হচ্ছে। শুধুমাত্র কোরবানির ঈদেই দেশীয় প্রতিষ্ঠান ওয়ালটনের বিপুল পরিমাণ ফ্রিজ ও টিভি বিক্রি হয়। এটা প্রমাণ করে যে- বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে দ্রæত এগিয়ে যাচ্ছে। 


এবারের বাণিজ্য মেলায় ১৩টি ক্যাটাগরিতে সর্বমোট ৩৮ প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। এর মধ্যে সেরা ভ্যাটাদাতা ও প্যাভিলিয়ন ক্যাটাগরিতে সর্বমোট ৪টি পুরস্কার পেয়েছে ওয়ালটন।

 


এ জাতীয় আরো খবর